প্রিয় শায়খ আহমাদুল্লাহ জেনারেল লাইনে পড়া মুসল্লি ভাই বোনদের জন্য নসিহত/উপদেশকৃত বই সমূহ

2,986.00৳ 4,240.00৳  (-30%)

Sold By: Md. Salim Hosen

100 in stock

মোট ১৩ টি বইয়ের গায়ের মূল্য সর্ব মোট ৪২৪০ টাকা।
আমরা দিচ্ছি মাত্র ২৯৮৬ টাকায় !!! ৩১% ছাড় দিচ্ছি

১) কোরআনের পূর্ণাঙ্গ সহজ সরল বাংলা অনুবাদ – ৭ (পেপারব্যাক)

২) রিয়াদুস সালেহীন (১ থেকে ৪ খন্ড)

৩) আর রাহীকুল মাখতূম

৪) ইসলামে হালাল হারামের বিধান

৫) শিকড়ের সন্ধানে

৬) লা তাহযান

৭) রিভাইভ ইয়োর হার্ট

৮) বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মাদ

৯) দ্যা রিভার্টসঃ ফিরে আসার গল্প

১০) আমরা সেই সে জাতি

Compare
Category:

মোট ১৩ টি বইয়ের গায়ের মূল্য সর্ব মোট ৪২৪০ টাকা।
আমরা দিচ্ছি মাত্র ২৯৮৬ টাকায় !!!

১) কোরআনের পূর্ণাঙ্গ সহজ সরল বাংলা অনুবাদ – ৭ (পেপারব্যাক)
অনুবাদক: হাফেজ মুনির উদ্দিন আহমদ
প্রকাশক: আল কোরআন একাডেমি প্রকাশনা
সংস্করণ :৩য় সংস্করণ এবং ১০ তম মুদ্রিত, ২০১৯
পৃষ্ঠা সংখ্যা :৪৯৬
গায়ের মূল্য :৩৬০
আমাদের মূল্য :২৫৫

আল কোরআন মানব জাতির জন্য আল্লাহ প্রদত্ত পথনির্দেশ। এর ভাষা আরবী।কোরআনের ভাষাশৈলী,এর
শিল্প সৌন্দর্য সবই লওহে মাহফুজের অধিপতি আল্লাহর তায়ালার একান্ত নিজস্ব।এ কারণেই বিশ্বের সব
কুরআন গবেষকই মনে করেন, এই মহান গ্রন্থের যথার্থ ভাষান্তর বা পূর্ণাঙ্গ অনুবাদ কোনটাই মানব
সন্তানের পক্ষে সম্ভব নয়।যাঁর কাছে এই বিন্ময়কর গ্রন্থ নাজিল করা হয়েছিল তাঁকে আল্লাহ তায়ালা স্বয়ং
এর অন্তর্নিহিত বক্তব্য বুঝিয়ে দিয়েছিলেন বলেই তাঁর পক্ষে এই কিতাবের মর্মোদ্ধার করা সম্ভবপর
হয়েছিল।এ কারণেই কোরআনে যাদের সর্বপ্রথম সম্বোধন করা হয়েছিল সেই আরবী ভাষী সাহাবীরাও
কোরআনের কোন বক্তব্য অনুধাবনের ব্যাপারে মতামত দেয়ার আগে রাসূল সা.-কে জিজ্ঞেস করে নিতেন।
আমরা বাংলাদেশের সিংহভাগ মুসলিম আরবী জানিনা।তাই কুরআন কে বোঝার চেষ্টা করতে আমাদের অনুবাদের
সাহায্য নিতে হয়।অনুবাদ একটি জটিল কর্ম।বেশির ভাগ অনুবাদই পাঠকের কাছে দুর্বোধ্য লাগে নয়ত
বিভ্রান্তি তে ফেলে দেয়।আর কোরআন,যা আল্লাহর ভাষা তা সঠিকভাবে ভাষান্তর করা আরো স্পর্শকাতর
একটি ব্যাপার।
বাংলাভাষী মুসলিমের জন্য সহজ ভাষায় কুরআন অনুবাদের সেই দূরহ কাজটি করেছেন হাফিজ মুনির উদ্দিন
আহমদ।তার অনুদিত ‘কোরআন মাজীদ: সহজ সরল বাংলা অনুবাদ’ গ্রন্থটিকে বাংলা ভাষায় আল কোরআনের
সব থেকে সহজ অনুবাদ হিসেবে মনে করা হয়।
হাফেজ মুনির উদ্দিন আহমদ-এর অনুবাদটি বিভিন্ন কারণেই অন্য অনুবাদগুলো থেকে ব্যতিক্রম।

১. চলিত বাংলায় সুন্দর-সাবলীল ভাষায় ছোট ছোট বাক্যে অনুদিত।

২. আরবী এবং বাংলা বক্সের মধ্যে পাশাপাশি দেয়া।পড়তে সুবিধা হয়।
৩. অনুবাদের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য ‘ব্রাকেট’ ব্যবহার করে ব্যাখ্যামূলক কথা আলাদা রাখা হয়েছে যাতে
তা কুরআনের ভাষার সাথে মিলে না যায়।
৪. অনুবাদ কোন ব্যাখ্যা বা টিকার আশ্রয় ছাড়াই মূল বক্তব্যের কাছে নিয়ে যেতে সক্ষম।
৫. পাঠকের জানার সুবিধার্থে গ্রন্থের শেষাংশে কোরআন মাজীদ অনুবাদের সংক্ষিপ্ত ইতি জুড়ে দেয়া হয়েছে।
৬. কোরআন কারীম নাজিল থেকে শুরু করে আমাদের হাতের কপিটি পর্যন্ত এর ক্রমবিকাশ নিয়ে একটি ছোট্ট
প্রবন্ধ সংযোজিত হয়েছে।
৭. কোরআনের কয়েকটি বিখ্যাত মোজেযা নিয়ে একটি সংযোজিত হয়েছে।
৮. শুদ্ধ করে কোরআন তেলাওয়াতের সুবিধার্তে কিছু মৌলিক তাজওয়ীদ নিয়ে একটি অধ্যায় রাখা হয়েছে।
৯. পাঠকের সুবিধার্তে কোরআন মাজীদে ব্যাবহৃত বিরতি চিন্হ গুলোর সংক্ষিপ্ত বর্ননা দেয়া আছে।
১০. কোরআনে বহুল ব্যবহৃত শব্দ গুলোর অর্থ সংযোজন করা হয়েছে।
১১. কোরআন মাজীদের সংক্ষিপ্ত বিষয় সূচী সংযুক্ত করা হয়েছে যেখান থেকে সহজেই কোরআনের বর্ণিত
ঘটনা বা বিধিনিষেধ সংক্রান্ত আয়াত গুলো খুজে পাওয়া যাবে।
১২. সূচীপত্রের সাথে সূরা নাজিলের ক্রম নম্বর উল্লেখ করা হয়েছে।

সামান্য কিছু বাংলা বানান ভুল ছাড়া চমৎকার, সহজবোধ্য একটি অনুবাদ।আল কুরআন কারীমকে বুঝে পড়তে
অত্যন্ত সহায়ক।
আল্লাহ আমাদের কুরআনকে বুঝে পড়ার এবং মেনে চলার তাওফীক দান করুন।

২)রিয়াদুস সালেহীন (১ থেকে ৪ খন্ড)
: ইমাম মুহিউদ্দীন ইয়াহইয়া আন-নববী (র)
মানুষের ইহলৌকিক এবং পারলৌকিক জীবনের চূড়ান্ত সফলতার জন্য আল্লাহ প্রদত্ত গাইডলাইন আল
কুরআন।আর হাদীসের সাহায্যেই আল কুরআনের সঠিক অর্থ অনুধাবন করা সম্ভব হয়। কুরআনের মৌল বিধান
সমূহের প্রায়োগিক পদ্ধতিও হাদীসেই বিধৃত হয়েছে।
রিয়াদুস সালেহীন কে ধরা হয় সব থেকে বেশি পঠিত হাদীস গ্রন্থ হিসেবে।ইমাম মুহিউদ্দিন ইয়াহইয়া আন-নববী
রাহিমাহুল্লাহ তাঁর দীর্ঘদিনের পরিশ্রম এবং অনুসন্ধানের মাধ্যমে এ গ্রন্থটি প্রণয়ন করেন। সিহাহ সিত্তাহ
এর হাদীস গ্রন্থ ও মুয়াত্তা ইমাম মালিক, মুসনাদ আহমদসহ অন্য কয়েকটি প্রথম সারির নির্ভরযোগ্য হাদীস
গ্রন্থ থেকে কেবল সহীহ হাদীস তিনি এই গ্রন্থে সংকলিত করেছেন।এই গ্রন্থের অধ্যায় ও অনুচ্ছেদ গুলো আল
কুরআনের আয়াত দিয়ে শুরু করা হয়েছে তারপর উদ্ধৃত হয়েছে সেই বিষয় সম্পর্কিত প্রামাণ্য হাদীস গুলো।

হাদিসের শেষে হাদিসের নির্ভরযোগ্যতা কোন পর্যায়ের তা উল্লেখ করা হয়েছে এবং ক্ষেত্রবিশেষে কিছুটা
ব্যাখ্যাও সংযুক্ত করা হয়েছে।
এ গ্রন্থে ইমাম নববী রাহিমাহুল্লাহ ৪২৩ টি আয়াত এবং ১৯০৩ টি হাদীস সংযোজিত করেছেন।তিনি এমনভাবে
হাদীস বাছাই করেছেন যা থেকে সকল শ্রেণীর মুসলিম উপকৃত হতে পারে। কারণ এখানে তিনি নৈতিক চরিত্র গঠন
থেকে শুরু করে মুসলিম ও মুমিন জীবনের বহির্কাঠামোর যাবতীয় দিক, তার সমস্ত আমল কার্যাবলীর সঠিক দিক
নির্ণয় ও সুষ্ঠু সম্পাদন এবং তার অন্তরের পবিত্রতা বিধান ও মানসিক পরিশুদ্ধির বিষয়গুলির সমাবেশ
ঘটিয়েছেন।
বাংলাদেশ ইসলামিক সেন্টারের অনুবাদটি আমার কাছে বেশ সহজবোধ্য লেগেছে।প্রত্যেকটি হাদীসই জীবন
ঘণিষ্ঠ।রাসূলের সুন্নাহ অনুসরণে অনুপ্রাণিত করে।
কিছু আছে হৃদয় প্রশান্তকারী,হতাশা -বিষন্নতা দূর করে দেয়। এই বইয়ে আমার সব থেকে প্রিয় রাসূল সা.- এর
দুআ এবং যিকির নিয়ে করা অধ্যায় দুইটি।
চার খন্ড চার রঙের। বেশ দৃষ্টিনন্দন প্রচ্ছদ।তবে পৃষ্ঠা গুলো আরো ভালো হতে পারতো।প্রত্যেক মুসলিমের
ঘরে এক কপি আল কুরআনের সাথে এক সেট রিয়াদুস থাকা উচিৎ।
গায়ের মূল্য :১১০০
আমাদের মূল্য :৭৮০
৩)আর রাহীকুল মাখতূম:
শাইখ আল্লামা সফিউর রহমান মুবারকপুরি
বিষয়: রাসুল সা: এর জীবনী
এই গ্রন্থে বিস্তারিত ভাবে যে সকল বিষয় আলোচিত হয়েছে সেগুলো হল:

তৎকালীন আরবের ভৌগোলিক, সামাজিক, প্রশাসনিক,​ অর্থনৈতিক ও ধর্মীয় অবস্থা।
রবের ধর্ম-কর্ম ও ধর্মীয় মতবাদ।
জাহিলিয়াতের সংক্ষিপ্ত বিবরণ।
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামে বংশ পরিচয়, বিবাহ, দাম্পত্য, সন্তান-সন্ততি, তাঁর আবির্ভাব
এবং এর পর ঘটনা বহুল পবিত্র জীবনের চল্লিশটি বছর।
নুবুওয়াত লাভের পূর্বকালীন সংক্ষিপ্ত চিত্র
নবুওয়তী জীবন এবং তার দাওয়াত
প্রথম পর্যায়ের মুসলিমগণের ধৈর্য ও দৃঢ়তার অন্তর্নিহিত কারণসমূহ।
মক্কা ভূমির বাইরে ইসলামের দাওয়াত প্রদান।
ইসরা ও মিরাজ।

হিজরত।
মাদানি জীবন
যুদ্ধ-বিগ্রহ, সন্ধি-চুক্তি।
রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা
সামাজিক ব্যবস্থার বৈপ্লবিক পরিবর্তন।
এবং তার ইহ লৌকিক জীবন থেকে তিরোধান।

উম্মুল মুমেনীন আয়েশা (রা:) বলেছেন, আসমানি গ্রন্থ আল-কুরআনই হল রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া
সাল্লাম) এর চরিত্র। তাঁকে অনুসরণ করা, তাঁর জীবন সম্পর্কে জানা প্রত্যেক মুসলিমের ঈমানী দায়িত্ব। এই
বইটিতে রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এর জীবন কাহিনী বিস্তারিত ভাবে আলোচিত হয়েছে।
আসুন, আমরা নবীজির জীবনকে জেনে সে অনুসারে নিজেদের গড়ে তুলি।
গায়ের মূল্য :৪০০
আমাদের মূল্য :২৬০
৪)ইসলামে হালাল হারামের বিধান:
আল্লামা ইউসূফ আল-কারযাভী
অনুবাদ: মওলানা মুহাম্মাদ আবদুর রহীম বিষয়: আহকাম, মাসয়ালা
আল্লামা ইউসুফ আল-কারযাভী লিখিত আরবী গ্রন্থ ‘আল–হালাল ওয়াল হারাম ফিল ইসলাম’– এর বাংলা অনুবাদ
‘ইসলামের হালাল-হারামের বিধান’ বাংলাভাষী সুধীমণ্ডলীর কাছে উপস্থিত করতে পেরে আমি আন্তরিকভাবে
মহান আল্লাহ তা’য়ালার শোকর আদায় করছি। এ নগণ্য ব্যক্তিকে আল্লাহ তা’য়ালা আল্লামা কারযাভী লিখিত
‘ফিক্‌হুয্‌-যাকাত’-এর দুইটি বিরাট খন্ডের বাংলা অনুবাদ ইতিপূর্বে পেশ করার তওফীক দিয়েছেন। সেজন্যে শোকর
আদায় করার মতো ভাষা আমার জানা নেই।

বস্তুত ইউসুফ আল-কারযাভী বর্তমান শতাব্দীর একজন শ্রেষ্ঠ ইসলামী ফিকাহ্‌বিদ- একথা শুধু আমার নয়,
একালের বহু বিখ্যাত মনীষীই তা অকপটে স্বীকার করেছেন। তা যেমন তাঁর লিখিত সব কয়টি বড় বড় ও
গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ অকাট্যভাবে প্রমাণ করে, তেমনি বাংলা ভাষায় প্রকাশিত ‘ইসলামের যাকাত বিধান’-এর দুইটি
খণ্ড ও তাঁর লিখিত অমর গ্রন্থ ‘আল ঈমান ওয়াল হায়াত’ অবলম্বনে আমার লিখিত ‘উন্নত জীবনের আদর্শ’ও
পাঠকদের কাছে নিঃসন্দেহ করে তুলেছে।
গায়ের মূল্য :৪৩০
আমাদের মূল্য :২৭৮
পৃষ্ঠা: ৪৮০

৫)শিকড়ের সন্ধানে
: হামিদা মুবাশ্বেরা
বিষয়: মুসলিম জাতি
গায়ের মূল্য :৪৩০
আমাদের মূল্য :৩১৫
পৃষ্ঠা সংখ্যা: ২৯৬ টি
কভার: পেপার ব্যাক
‘Know Thyself’ সক্রেটিসের বিখ্যাত একটি উক্তি। সক্রেটিস নিজেকে জানতে বলেছেন। নিজেকে জানতে পারার
মধ্যেই সক্রেটিস মানবজীবনের সার্থকতা খুঁজেছেন। সক্রেটিসের এই দর্শন আদতে কানায় কানায় সত্য।
মানবজীবন ঠিক তখনই পরিপূর্ণভাবে বিকাশ লাভ করে যখন মানুষ নিজেকে জানতে শুরু করে ও আত্মপরিচয়ের
ব্যাপারে প্রলুব্ধ হয়। নিজেকে উদঘাটন করতে পারলেই ঠিক করে ফেলা যায় জীবনের দর্শন। জীবনের গন্তব্য,
উদ্দেশ্য এবং রদবদল, সবকিছু সহজ হয়ে যায় যদি নিজেকে জানা যায়। যদি একেবারে শেকড়ে ফিরে চেনা যায়
নিজের প্রকৃতি।‘মুসলমান’ হিসেবে এই ব্যাপারটা আরও বিশদভাবে সত্য। আমরা যদি নিজেদের আত্মপরিচয়,
আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআলা প্রদত্ত গৌরবময় মর্যাদা ‘মুসলমানিত্বের’ সঠিক মর্মার্থই বুঝতে না পারি,
তাহলে কীভাবে নির্ধারণ করব নিজেদের গন্তব্য এবং উদ্দেশ্য? কেন-ই বা আমরা মুসলিম, অন্যরা কেন নয়,
কীভাবে আমরা মুসলিম হলাম, আমাদের ঠিক আগে, আল্লাহর একাত্মবাদে যারা আসীন ছিলেন, তারা কোন
পরিচয়ে ধন্য হয়েছেন, তাদের সাথে আমাদের যোগসাজশ কোথায়? সাদৃশ্য আর বৈসাদৃশ্য কী কী—এসব জানতে
পারাই হলো আমাদের আত্মপরিচয় সন্ধানের প্রথম সবক।‘শেকড়ের সন্ধানে’ বইতে লেখিকা হামিদা মুবাশ্বরা
ঠিক আমাদের জন্য এই কাজটিই করেছেন। তিনি আমাদের নিয়ে গেছেন অতীতে—একেবারে গোড়ায়, যেখান থেকে
আমাদের আত্মপরিচিতির শুরু। কত হাওয়া বদল করে, কত বাঁক পেরিয়ে, কত সময় পার করে, কত ঘাত-প্রতিঘাতে
আমরা আমাদের শেষ পরিচয়, ‘মুসলমান’—এ এসে ঠেকেছি, সেই মহাযাত্রার রহস্যপানে লেখিকা আমাদের ভ্রমণ
করিয়েছেন। লেখিকা কেবল আমাদের সোর্স থেকে আমাদের ক্ষুধা, তৃষ্ণা নিবারণ করাননি। তিনি আমাদের কখনো
তাওরাতে, কখনো ইঞ্জিলে, আবার কখনো কুরআনে ডুব দিইয়েছেন। প্রসঙ্গক্রমে ঢুকে পড়েছেন বিশাল বিস্তৃত
হাদিসশাস্ত্রের ভেতরেও। লেখিকার অণ্বেষণ প্রক্রিয়া, জানার তীব্র আকাঙ্খা, সত্যকে আজলা ভরে তুলে
আনার ঢঙ বেশ আশাজাগানিয়া। এ রকম একাডেমিক একটা বিষয়কে তিনি কীভাবে সাধারণ মানুষদের জন্যও
উপযোগী করে ফেললেন তা-ও বিস্ময় জাগানিয়া!

৬)লা তাহযান:
ড. আইদ আল কারণী
অনুবাদ: পিস পাবলিকেশনস
বিষয়: ইসলামিক মোটিভেশন
গায়ের মূল্য :৬৫০

আমাদের মূল্য :৩৩৮
পৃষ্ঠা: ৬৩৪
“লা তাহযান” বইটির ভূমিকায় লেখক ১০ টি কথা বলেছেন, যার মধ্যে অন্যতম হল এই বইটি সব ধর্মের মানুষের
জন্য,ধনী গরীব সবার জন্য। প্রত্যেকের জন্যই এই বইয়ে রয়েছে শিক্ষা।লেখক ৩৫৭ টি শিরোনামে বিভিন্ন
গল্প, প্রবন্ধ লিখে বইটিকে সাজিয়েছেন।

রাসুলুল্লাহ (সাঃ) যখন আবু বকর (রাঃ) কে নিয়ে মক্কা থেকে মদিনায় রওনা হন, তখন শত্রুরা তাদেরকে হত্যার
জন্য খুঁজতে থাকে। একসময় রাসুলুল্লাহ (সাঃ) একটা গুহায় আশ্রয় নেন। আবু বকর(রাঃ) ভয় পেয়ে রাসুল কে তার
চিন্তার কথা জানালেন।তখন মুহাম্মদ (সাঃ) বললেন, “লা তাহযান,ইন্নাল্লাহা মা আ’না।” যার অর্থ,” ভয় করো
না,নিশ্চয়ই আল্লাহ আমাদের সাথে আছেন। ”
জীবনের এত কঠিন মূহুর্তে রাসুল (সাঃ) তার সাথীকে যে কথা বলে অভয় দিয়েছেন,তা আল্লাহর কাছে এত পছন্দ
হয়েছিল, যে আল্লাহ স্বয়ং একে কুরআনের অন্তর্ভুক্ত করে দেন।

বর্তমান এই দুনিয়ায় আমরা প্রতিনিয়ত নানা ব্যর্থতা,হতাশার শিকার হচ্ছি।পরীক্ষায় ভালো ফলাফল না
করলে,ব্যবসায় লাভ না হলে,বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হলে, আর্থিক অবস্থার উন্নতি না হলে আমরা খুব সহজেই
হতাশ হয়ে পড়ি। লেখক মূলত এই হতাশাকে দূর করার জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করে এই কালজয়ী গ্রন্থটি
লিখেছেন। কুরআন হাদিস থেকে অসংখ্য স্বান্তনার গল্প তিনি এই বইয়ে রেখেছেন।এছাড়াও সাহাবীদের জীবন
থেকেও বিভিন্ন অনুপ্রেরণামূলক গল্প তিনি এতে রেখেছেন।
৭)রিভাইভ ইয়োর হার্ট:
নোমান আলী খান
বিষয়: ইসলামিক মোটিভেশন
পৃষ্ঠা : ১৪৪,
কভার : হার্ড কভার,
সংস্করণ : প্রথম সরস্করণ ২০১৯
আধুনিক যুগের বিশ্বাসী মানুষরা কীভাবে আল্লাহ্‌ রাব্বুল আলামিনের সাথে হৃদয়ের কথা শেয়ার করে? কীভাবে
আমরা একটা সৌহাদ্যপূর্ণ, পারস্পরিক সহযোগিতা মনোভাবাপন্ন সমাজ গড়ে তুলতে পারি? আজকের দিনে
উম্মাহ যেসব বড়ো বড়ো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছে, সেগুলোকে কীভাবে আমরা সামলিয়ে নিতে পারি? এসব
প্রশ্ন এবং তার উত্তর খুঁজে পাব এই উস্তাদ নুমান আলী খানের এই সংকলিত গ্রন্থে ইনশাআল্লাহ্‌।
গায়ের মূল্য :১৭৫
আমাদের মূল্য :১৬৫

৮)বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মাদ
হিশাম আল আওয়াদি, মাসুদ শরীফ
বিষয়: দৈনন্দিন জীবনে সুন্নাহ
গায়ের মূল্য :১৭৫
আমাদের মূল্য :১৬৫
অনুবাদ: মাসুদ শরীফ
পৃষ্ঠা: ১৪৪
কভার: হার্ড কভার
বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মাদ (সাঃ)’ হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) – এর অন্যান্য জীবনীগ্রন্থের মতো না। বইটিতে নবীজি
(সাঃ)- কে শিশু থেকে শুরু করে প্রাপ্ত বয়স পর্যন্ত দেখানো হয়েছে খুবই সাবলীলভাবে। সেই সাথে আমরা নবীজি
মুহাম্মদ( সাঃ) – এর শিশু বয়স থেকে শুরু করে মৃত্যু অবধি প্রতিটি পর্যায় থেকে শিক্ষা নিয়ে কিভাবে নিজেদের
সমৃদ্ধ করতে পারি তা সুন্দরভাবে বিশ্লেষণ করা হয়েছে বইটিতে।কেমন ছিল তাঁর শৈশব, কৈশোর, তারুণ্য আর
যৌবনের উজ্জ্বল দিনগুলো ? নবিজির (সাঃ) জীবনী পড়তে গেলেন আমরা সাধারণত তাঁর নবুওয়্যাত পরবর্তী
জীবনেই বেশি গুরুত্ব দেই। কিন্ত এর ভিত্তিটা যে মহান আল্লাহ তাঁর নবুওয়্যাত-পূর্ব ৪০ বছরের জীবনে ধীরে
ধীরে তৈরি করেছিলেন সেটা কজন ঘেঁটে দেখি? প্রচলিত অর্থে কোনো সীরাহ বই নয় এটি। কোনো তাত্ত্বিক
ঘটনার বিবরণও না। এখানে আপনি পাবেন ব্যবহারিক কিছু জ্ঞান । হাতে কলমে শিখবেন নিজের বাচ্চাকে
নবিজির (সাঃ) মতো করে বড় করার উপায়। টিনএজ বয়সী হলে জানতে পারবেন এই উড়ুউড়ু সময়টাতে নিজেকে বসে
রাখার কৌশল। বিবাহিত হলে আছে দুজনে মিলে জীবনটাকে আরও মধুর করার টোটকা। সর্বোপরি নবিজির (সাঃ)
মতো জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ‘স্মার্ট’ হওয়ার তরিকা।
৯)দ্যা রিভার্টসঃ ফিরে আসার গল্প:
শামছুর রহমান ওমর ও কানিজ শারমিন
বিষয়: ইসলাম গ্রহণের গল্প
গায়ের মূল্য :২৬০
আমাদের মূল্য :২৪৫
পৃষ্ঠা : ২৫৬,
কভার : হার্ড কভার, সংস্করণ : ৫ম , ২০২১

এই ধর্মবিবর্জিত আধুনিক সময়ে আঠারো-উনিশ বছরের তরুণ-তরুণী আসলে কী চায়? কী তাদের সুখি করে? ঘুরে
ফিরে আসবে দামি ল্যাপটপ, মোবাইল, নাটক-সিনেমা, গান,মাদক,কিংবা একজন ভালো মানুষের কথা। কিন্তু
বাস্তবেই কি এগুলা মানুষকে সুখি করতে পারে? তাই যদি হতো, তাহলে কেন আজ ঘরে ঘরে এতো অশান্তি? কেন

বাড়ছে আত্নহত্যা,হতাশা আর মাদকের ব্যাবহার? কেন বাড়ছে খুন,হত্যা,ধর্ষণ? সত্যিকারার্থে মানুষের সুখ
কোথায়? কোথায় পাওয়া যায় মনের গভীরের প্রশান্তি?আসলে মানুষের জীবনের উদ্দেশ্যই বা কী?

এসব প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আমাদের প্রয়াস 'দ্য রিভার্টস:ফিরে আসার গল্প'। আমরা জানব, পশ্চিমা দুনিয়ায়
আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধার মধ্যে বেড়ে উঠেও কী করে মানুষ শান্তির আশায় হন্য হয়ে ঘুরছে। আমরা জানব, কী
করে তারা খুঁজে পেলেন জীবনের আসল উদ্দেশ্য,আলোর পথ। জেনে নিব অতীত মুছে ফেলে নতুন জীবন গড়তে কোন
জিনিস তাদের উদ্বুদ্ধ করেছে।

এসকল জানতে হলে পড়ুন, "দ্যা রিভার্টসঃ ফিরে আসার গল্প"। চিন্তা, দর্শন ও জীবন পরিবর্তনের মোট ১৩ টি
গল্প নিয়ে সাজানো এই বই।
১০)আমরা সেই সে জাতি
: আবুল আসাদ
গায়ের মূল্য :২৬০
আমাদের মূল্য :১৮৫
একদম প্রাথমিক পর্যায়ে যারা ইসলাম গ্রহণ করেছেন, খাব্বাব তাঁদের মধ্যে একজন। বোধ হয় ইসলাম গ্রহণের
ক্ষেত্রে পাঁচ ছয় জনের পরই তাঁর স্থান হবে। তিনি এক জন মহিলার ক্রীতদাস ছিলেন। মহিলাটি ছিল নিষ্ঠুরতার
জ্বলন্ত প্রতিমূর্তি। যখন সে জানতে পারল খাব্বাব ইসলাম গ্রহন করেছেন, তখন তাঁর উপর নির্মম অত্যাচার
শুরু হলো। অধিকাংশ সময় তাঁকে নগ্নদেহে তপ্ত বালুর উপর শুইয়ে রাখা হতো। যার ফলে তাঁর কোমরের গোশত গলে
পড়ে গিয়েছিল। ঐ নিষ্ঠুর রমণী মাঝে মাঝে লোহা গরম করে তাঁর মাথায় দাগ দিত।

অনেকদিন পর হযরত উমারের রাজত্বকালে হযরত উমার একদিন তাঁর উপর নির্যাতনের বিস্তৃত বিবরণ জানতে
চাইলেন। খাববার তখন বললেন, “আমার কোমর দেখুন।” হযরত উমার কোমর দেখে আঁৎকে উঠে বললেন, “এমন
কোমর তো কোথাও দেখিনি?” উত্তরে খাব্বাব খলীফাকে জানালেন, “আমাকে জ্বলন্ত অঙ্গারের উপর শুইয়ে চেপে
ধরে রাখা হতো, ফলে আমার চর্বি ও রক্তে আগুন নিভে যেত।”

এই নির্মম শাস্তি ভোগ করা সত্ত্বেও ইসলামের যখন শক্তি বৃদ্ধি হল এবং মুসলমানদের বিজয় সূচিত হলো,
তখন খাববাব রোদন করে বলতেন, “খোদা না করুন আমার কষ্টের পুরষ্কার দুনিয়াতেই যেন লাভ না হয়।”
মাত্র ৩৬ বছর বয়সে হযরত খাব্বাবের মৃত্যু হয় এবং সাহাবাদের মধ্যে সর্ব প্রথম তিনিই কুবায় কবরস্থ হন।
তাঁর মৃত্যুর পর হযরত আলী (রা) একদিন তাঁর কবরের পাশ দিয়ে যাবার সময় বলেছিলেন, “আল্লাহ খাব্বাবের
উপর রহম করুন। তিনি নিজের খুশীতেই মুসলিম হয়েছিল। নিজ খুশীতেই হিজরত করেছিলেন। তিনি সমস্ত জীবন
জিহাদে কাটিয়ে দিয়েছিলেন এবং অশেষ নির্যাতন ভোগ করেছিলেন।”

Be the first to review “প্রিয় শায়খ আহমাদুল্লাহ জেনারেল লাইনে পড়া মুসল্লি ভাই বোনদের জন্য নসিহত/উপদেশকৃত বই সমূহ”

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Reviews

There are no reviews yet.

Vendor Information

  • 4.11 rating from 62 reviews
    00

Main Menu

প্রিয় শায়খ আহমাদুল্লাহ জেনারেল লাইনে পড়া মুসল্লি ভাই বোনদের জন্য নসিহত/উপদেশকৃত বই সমূহ

2,986.00৳ 4,240.00৳  (-30%)

Add to Cart